May 8, 2021

“অপরূপা বাংলার মা” ১১০ কেজি রুপা দিয়ে তৈরি হচ্ছে শতবর্ষের মাতৃ প্রতিমা

সোমনাথ সাহা – কলকাতা

পরাধীন ভারতে পূর্ব কলকাতার ট্যাংরা অঞ্চলের পটারি রোডের ‘দুর্গা মাঠে’ জনাকয়েক হাতেগোনা পল্লীবাসীকে নিয়ে শুরু হয়েছিল দেবী দুর্গার আরাধনা। পূর্ব কলকাতার ‘কামারডাঙা সাধারণ দুর্গোৎসব সমিতি’ এবছর শতবর্ষে পদার্পণ করল। একশোতে একশো দশ’ রূপোর প্রতিমা “অপরূপা বাংলা মা” এই বাণীকে স্মরণ করে এবারের দুর্গা ‘একশোতে একশো দশ’ রুপোর প্রতিমা তৈরী হচ্ছ এই ক্লাবে। অর্থাৎ ১১০ কেজি রুপা দিয়ে তৈরি হয়েছে শতবর্ষের মাতৃ প্রতিমা। প্রতিমার আদল বাংলা ঘরানার হলে ও একটু আধুনিকতার ছোঁয়াও থাকবে তাতে যেমন মাথায় ঘোমটা থাকলে ও দুর্গার পরনে থাকবে ঘাগরা সবই রুপোর পাতের ওপর শিল্পীদের নিপুণ কাজে তৈরি হচ্ছে। যেখানে অসুরকে বিনাশ করে শান্তির বার্তা নিয়ে মা উমা দাঁড়িয়ে থাকবেন অসুরের শরীরের ওপর। মায়ের কয়েকটি হাতে থাকবে জ্বলন্ত প্রদীপ, কোনও  অস্ত্র নয়। অন্য হাতে তিনি অভয় দান করবেন। প্রায় ১৫ ফুট উচ্চতার রুপোর তৈরি এই দেবী দুর্গার মূর্তিতে বিভিন্ন অলংকারও থাকবে সব নিখুঁত খোদাই করা রুপোর। অশুভ শক্তির বিনাশের পর মাতৃমূর্তির এমনই ভাবনার প্রকাশ পাবে হাবড়ার শিল্পী ইন্দ্রজিৎ পোদ্দারের শিল্পকর্মে। রুপোর এই প্রতিমা তৈরীর কাজ হয়েছে শিল্পীর নিজের জায়গা হাবড়ার বানিপুরে। ১০ জন শিল্পী ছয় মাসের অক্লান্ত পরিশ্রমে এই প্রতিমা তৈরি করছেন। অন্যদিকে, মন্ডপসজ্জায় শিল্পী ইন্দ্রজিৎ তুলে ধরবেন ‘অপরূপা বাংলা মা’-কে।

এই পুজোর ভাবনায় পশ্চিমবঙ্গের ২৩টি জেলার বিশেষ বিশেষ শিল্প-সংস্কৃতি, কৃষ্টি যেমন তুলে ধরা হবে তেমনি থাকবে কৃষি, সাক্ষরতা হার, জনসংখ্যা এবং জেলার বিশিষ্ট মনীষীদের পরিচয়। আসামের বিশেষ ধরনের বাঁশ দিয়ে দক্ষিণ দিনাজপুরের তৈরি শিল্প থাকবে মন্ডপের প্রধান প্রাবেশদ্বার। প্রত্যেক জেলার একটি সম্যক ধারণা তুলে ধরা হবে পাটের ডিজাইন এর মধ্যে দিয়ে। পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম প্রধান পরিচয় তার হস্তশিল্প। যেমন বাঁকুড়ার টেরাকোটা, পুরুলিয়ার ছৌ, বর্ধমানের কাঠের পেঁচা, মুর্শিদাবাদের শোলা শিল্প। এইরকম বিভিন্ন জেলার নানান উন্নতমানের শিল্প সৃষ্টি দিয়ে করা হবে মণ্ডপসজ্জা। এই কথা জানান সম্পাদক কামারডাঙ্গা সাধারণ দুর্গোৎসব সমিতির শ্রী সমীর সাহা মহাশয়। তিনি সকল দর্শনার্থীদের এই ঐতিয্যপূর্বক মন্ডপ ও প্রতিমা দর্শন করতে আসার জন্য অনুরোধ জানান ।

Total Page Visits: 360 - Today Page Visits: 1