March 9, 2021

দক্ষিণভারতীয় মনিপল হসপিটালের চিকিৎসায় সুস্হ ঘাটালের গৃহবধূ

সপ্তর্ষি সিংহঃ

দক্ষিণ ভারতের চিকিৎসকদের চিকিৎসায় সম্পূর্ণ রূপে সুস্থ হলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ঘাটালের গৃহবধূ তনুশ্রী মাইতি (২৭)। আজ থেকে ২ বছর আগে ২০১৭ সালে কলকাতার সরকারী ও বেসরকারী হাসপাতালের চিকিৎসকেরা তনুশ্রী-র হাত দেখেই বলে দিয়েছিলেন, ‘আর কিছুই করার নেই, হাতটা বাদ দিতে হবে।’ কিন্তু কলকাতার চিকিৎসকদের এই নিদানে না দমে তনুশ্রী-র স্বর্ণকার স্বামী ওঁকে নিয়ে চলে যান বেঙ্গালুরু-র ‘মনিপাল হসপিটাল’-এ। শুক্রবার কলকাতার কামালগাজিতে অবস্থিত ‘মনিপাল হসপিটাল ইনফর্মেশন সেন্টার’-এ এক সাংবাদিক সম্মেলন করে তনুশ্রীর শল্যচিকিৎসক শ্রীমন্ত বি এস (কনসালটেন্ট অর্থপেডিক ওঙ্কোসার্জন) জানান, “এপ্রিল ২০১৭ সালে আমরা ওঁনাকে প্রথম দেখি। তখন ওঁনার ডানহাতে ফুলকপি বা বাঁধাকপি-র মতো একটা টিউমার ছিল। বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার পর আমাদের অপর চিকিৎসক শ্রীকান্ত ভি (প্লাস্টিক এণ্ড মাইক্রো-রিকনস্ট্রাকটিভ সার্জন)-র সহযোগিতা নিয়ে ২০১৭ সালের মে মাসে আমি অস্ত্রোপাচার করি।’’
অস্ত্রোপাচার সম্পর্কে বলতে গিয়ে তনুশ্রী মাইতি জানান, “মনিপালে যাওয়ার আগে আমার স্বামী আমাকে কোলকাতার অনেক অনেক বড়ো বড়ো চিকিৎসকেদের কাছে দেখাতে নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু কেউ আশার কথা শোনাননি, শেষে ব্যাঙ্গালুরু গিয়ে প্রায় ৭-৮ লাখ টাকা খরচ করার পর হাত ফিরে পেলাম।”

Total Page Visits: 229 - Today Page Visits: 1