July 30, 2021

পঞ্চম তম মাইক্রোফিনান্স সামিট 2019

তনয় মন্ডল – কলকাতা

পরিবেশ এবং নিয়ন্ত্রক পদক্ষেপের সাম্প্রতিক বিঘ্নের কারণে, মাইক্রো-ঋণদাতা, ব্যাংকারগণ, নীতি-নীতিবিদদের জোটবদ্ধ আর্থিক পরিষেবা সরবরাহকারী এবং গবেষকরা সাধারণ প্ল্যাট ফর্মের সাথে একত্রিত হওয়া প্রয়োজন। পঞ্চম তম মাইক্রোফিনান্স সামিট কলকাতার ললিত হোটেলে 18 ই ডিসেম্বর 2019 অনুষ্ঠিত হচ্ছে । সেই অনুষ্ঠান উপলক্ষে কলকাতার প্রেস ক্লাবে হয়ে গেল প্রেস মিট। মাইক্রোফিনান্স সংস্থা সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অফ মাইক্রোফিনান্স অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক ও উত্তরায়ন মাইক্রোফিনান্সের কর্নধার কার্তিক বিশ্বাস বলেন – চলতি অর্থবছরে এখনও পর্যন্ত মাইক্রোফিনান্স সংস্থাগুলি ঋণ দেওয়ায় গত বছরের তুলনায় ৪০ শতাংশ বেড়েছে। গত বছর ওই বৃদ্ধির হার ছিল ৩৫ শতাংশ। গোটা দেশে মাইক্রোফিনান্স সংস্থা গুলির অনাদায়ী ঋণের গড় পরিমান ১ শতাংশের কম। সংগঠনের ভাইস প্রেসিডেন্ট সরলা ডেভলপমেন্ট

অ্যাণ্ড মাইক্রোফিনান্স প্রাইভেট লিমিটেডের কর্নধার প্রনব রক্ষিত বলেন মাইক্রোফিনান্সের ৩০ শতাংশ কৃষি এবং কৃষি সংক্রান্ত ব্যবসায়। আগে ব্যাঙ্কগুলি থেকে মাইক্রোফিনান্স সংস্থা গুলি মেয়াদী ঋণ পেত। এখন বিদেশের বাজারে ঋণ নেওয়া ও ঋণপত্র ছেড়ে টাকা তোলার পথ খুলে গিয়েছে। গোটা দেশে মোট ৭৫টি মাইক্রোফিনান্স সংস্থা AMFI -এর সদস্য। এরাজ্যে সংগঠনের সদস্য সংখ্যা ৩৮টি। এর মধ্যে ১২টি সংস্থার মূলধনের পরিমান ৫০০ কোটি টাকার বেশি এবং ১৮টি সংস্থার মূলধন ২০০ কোটি টাকার বেশি। রাজ্যের ৮৫ লক্ষ মহিলা কোনও না কোনও মাইক্রোফিনান্স সংস্থা থেকে ঋণ নিচ্ছে।

Total Page Visits: 195 - Today Page Visits: 1