April 23, 2021

রোডিজ রেভলিউশনে কলকাতায় নেহা ধুপিয়া ও রন বিজয় সিং

নিজস্ব প্রতিনিধি – কলকাতা

উন্মাদনার পারদ তুঙ্গে তুলে দিয়ে ভারতের সবথেকে দীর্ঘদিন ধরে চলা অ্যাডভেঞ্চার রিয়্যালিটি শো এর ১৭তম সিজন কলকাতায় ফিরছে তাও ২ বছরের ব্যবধানে। নতুন থিম এর উপর ভর করে, রোডিজ রেভলিউশন দর্শকদের অপ্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাডভেঞ্চার অভিজ্ঞতার স্বাদ দেবে তবে তা একটি নির্দিষ্ট উদ্দেশে- সমাজে পরিবর্তণ নিয়ে আসা। রিয়্যালিটি শো এর গণ্ডি ছাড়িয়ে, রোডিজ, এবারে, বৈপ্লবিক পদক্ষেপের সঙ্গে সমাজে ছাপ ফেলার দৃঢ়প্রতিজ্ঞা নিয়ে এগিয়ে চলেছে, একবারে একটি টাস্ক। আগের ১৬টি সিজনের

অসাধারণ সাফল্যের পর, এই শো সিটি অফ জয় কলকাতায় সেই সব যুবাদের সন্ধানে হাজির হয়েছে যারা সাধারণ ধ্যানধারণাকে চ্যালেঞ্জ করে নিজেদের আলাদা অবস্থান তৈরি করেছেন। সেলিব্রিটি লিডার যেমন নেহা ধুপিয়া এবং প্রিন্স নারুলার সঙ্গে রনবিজয় সিং কলকাতা অডিশনে উপস্থিত ছিলেন এবং রোডিজ এর মাধ্যমে সামাজিক ও আচরণগত পরিবর্তণের বার্তা দিয়েছেন। রোডির মূল মন্ত্র এর অপ্রতিদ্বন্দ্বী স্পিরিট ধরে রেখে, সেলিব্রিটি লিডাররা, এই সিজনে নানা সাহসি টাস্ক যুক্ত করার কথা জানিয়েছেন যাতে সমাজে সত্যিকারের এবং লক্ষ্যণীয় প্রভাব পড়ে। নেহা ধুপিয়া এবং প্রিন্স নারুলা তাদের টিমের জন্য সেরা জনকে বেছে নিয়েছেন, তেমনি রিংমাস্টার রনবিজয় সিং অডিশনে প্রতিযোগিদের জন্য কড়া চ্যালেঞ্জ ও কঠিন সময় নিশ্চিত করেছেন। নেহা ধুপিয়া যিনি রোডিজ এর সঙ্গে টানা ৫ বছর পূর্ণ করলেন, বলেন, “আমি সত্যি বিশ্বাস করতে পারছি না যে রোডিজ এর সঙ্গে আমার টানা পাঁচটা বছর কেটে গেল। এই পাঁচ বছরে এই শো আমাকে অনেক পরিবর্তণ করেছে বিশেষত শেষ চারটি সিজনে আমি প্রতিটি চ্যালেঞ্জ এর জন্য প্রস্তুত থেকেছি। আর প্রতিবার আমাকে নতুন কিছু আবিষ্কার করার সুযোগ করে দিয়ে আমার

কামব্যাক করার রাস্তা প্রশস্ত করেছে। এই সিজনে, আমরা রোডির এই চিরন্তন স্পিরিটকে সদর্থক কিছু কাজে ব্যবহারের পরিকল্পনা করেছি। বছরের পর বছর ধরে এই শো দেশের যুবাদের মধ্যে একটা দারুণ জায়গা করে নিয়েছে,কাজেই এই পরিবর্তনের বার্তা দেওয়ার জন্য এর থেকে ভালো আর কোন স্থান হতে পারতো না”। রনবিজয় সিং, রোডিজের সঙ্গে যার নাম অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত, তিনি বললেন, “১৭টি সিজন পেরিয়ে গেল আর তা বেড়েই চলেছে, এতগুলো পর্ব ভারতীয় যুবাদের মধ্যে বিরাট প্রভাব ফেলেছে রোডিজ। প্রতি সিজনে নতুন নতুন থিম নিয়ে আসার কারণে এই শো আজও প্রাসঙ্গিক রয়েছে একইভাবে। এই সিজনে, আমরা ব্যক্তির উপর থেকে নজর ঘুরিয়ে আরো উচ্চ উদ্দেশ্য নিয়ে এগিয়ে চলা যার জন্য সাহস এবং দায়বদ্ধতা প্রয়োজন। এখানে আমরা সেই সব ডাইন্যামিক প্রতিযোগীদের সঙ্গে দেখা হওয়ার আশা করছি, যারা সমাজে পার্থক্য গড়বেন”।

Total Page Visits: 141 - Today Page Visits: 1