October 27, 2021

শ্রোতাদের মনজয় করলেন বংশী বাদক শ্রী ইন্দ্রজিত বাসু

নিজস্ব প্রতিনিধি –

পুলিশ প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কোন কর্তাব্যক্তি শহরের সঙ্গীতপ্রেমীদের মুগ্ধ করছেন তাঁর সাঙ্গীতিক পরিবেশনার মাধ্যমে, এমন ঘটনা খুবই বিরল। সম্প্রতি বারুইপুর পুলিশ ডিস্ট্রিক্ট এর আডিশনাল সুপারিন্টেন্ডেন্ট ইন্দ্রজিত বাসু বাঁশি বাজিয়ে এমনই এক সঙ্গীতমুখর সন্ধ্যা উপহার দিলেন শ্রোতাদের। অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়েছিল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশনস্ (আই সি সি আর) এ। ইন্দ্রজিত বাবুকে তবলায় যোগ্য সঙ্গত দেন সৌমেন সরকার।
পুলিশ প্রশাসনের যথেষ্ট দায়িত্বপূর্ণ পদাধিকারী হওয়া সত্ত্বেও ইন্দ্রজিত বসু কাজের মাঝে তাঁর বিশেষ সখ বাঁশি রেওয়াজের সময় বের করে নেন নিয়মিত। তাঁর ভাষায় “ সরকারী কাজ যেমন দায়িত্ব ও নিষ্ঠা সহকারে পালন করি তেমনই শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের প্রতি অপরিসীম অনুরাগ আমায় দুটি দিকের প্রতি সমতা বজায় রেখে চলার অনুপ্রেরণা দেয়। সঙ্গীত সাধনা আমার স্বপ্ন “।
“আমি মূলতঃ উত্তর ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের চর্চা করি নিয়মিত। রাগপ্রধান যন্ত্রানুসঙ্গীতের রেওয়াজ আমার দৈনন্দিন কাজের তালিকায় রয়েছে। একক এবং সম্মিলিত অর্থাৎ সাঙ্গীতিক পরিভাষায় যেটিকে যুগলবন্দী বলা হয় এই দুই ধরণের মঞ্চ পরিবেশনা করে থাকি। যুগলবন্দী পরিবেশনে বাঁশির সঙ্গে থাকে সরোদ, সেতার, সানাই, বেহালা এবং সারেঙ্গী”। আই সি সি আর অধিকর্তা গৌতম দেব ইন্দ্রজিত বাসুর বাঁশি পরিবেশনার ভূয়সী প্রশংসা করেন। ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ফোরাম ফর আর্ট এন্ড কালচার এর কালচারাল সেক্রেটারি সুব্রত গাঙ্গুলি বলেন, “মনমুগ্ধকর একটি পরিবেশনার মাধ্যমে শ্রীমান বাসু শ্রোতাদের সম্মোহিত করে তোলেন “। শ্রীমান গাঙ্গুলি ইন্দ্রজিত বাসুকে একটি কারুকার্যময় শঙ্খ দিয়ে অভিবাদন করেন। খ্যাতনামা শিল্পী যেমন ওস্তাদ জাকির হোসেন, পন্ডিত তেজেন্দ্র নারায়ণ মজুমদার, পন্ডিত বিশ্বমোহন ভাট, ওস্তাদ রশিদ খান, ওস্তাদ শাহিদ পারভেজ, এনাদের সঙ্গে মঞ্চে বাঁশি পরিবেশন করার রেকর্ড রয়েছে ইন্দ্রজিত বাসুর। 

Total Page Visits: 188 - Today Page Visits: 1