August 14, 2022

কোভিড সংকটের মধ্যেও মিকি মেটালস লিমিটেড- এর সম্প্রতি লোগো উনমোচন হয়ে গেল কলকাতায়

নিজস্ব প্রতিনিধি

মিকি মেটালস লিমিটেড-এর প্রোডাক্ট মিকি পাওয়ার প্লাস টিএমটি ৬০০ এসডি বাজারে আনা হলো সম্প্রতি প্রেস কনফারেন্স করে ব্র্যান্ডের নতুন লোগোর উদ্বোধনও করা হল ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর যীশু সেনগুপ্তর উপস্থিতিতে । তিনি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মিকি মেটালস লিমিটেড-এর চারজন ডিরেক্টর, শ্রী এস.কে আগারওয়াল, শ্রী এন.কে আগারওয়াল, শ্রী সাকেত আগারওয়াল এবং শ্রী সুমিত আগারওয়াল। বর্তমানে মিকি মেটালসের ম্যানুফ্যাকচারিং প্লান্ট রয়েছে

বীরভূমে এবং তাদের সম্প্রসারণের পরিকল্পনাও রয়েছে দুর্গাপুর সহ বিভিন্ন জায়গায়। বিহার, ঝাড়খন্ড, ঊড়িষ্যা, অসম, উত্তর প্রদেশ, রাজস্থান, হরিয়ানা এবং জম্মু- কাশ্মীরেও পরবর্তী ছয় মাসের মধ্যে সম্প্রপসারণ হবে বলে সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে। অতিমারীর কারণে বহু সংখ্যক কর্মী ছাটাই হয়েছে অনেক ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রেই, কিন্তু তা সত্ত্বেও মিকি মেটালস কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেবে এই ভৌগোলিক সম্প্রসারণের মাধ্যমে। নতুন মিকি পাওয়ার প্লাস টিএমটি ৬০০ এসডি বারটি বানানো হয়েছে ভূমিকম্প প্রবণ জায়গার জন্য যেগুলি বিশেষত সিসমিক জোনের মধ্যে পরে, কারণ এই বারগুলি নমনীয় হলেও ভঙ্গুর নয় কোনোভাবেই। এই নতুন টিএমটি বারটি আদ্রতা বজায় রেখে ভিতরের স্তরটিকে মরচে পরা থেকে রক্ষা করে। কোম্পানির ডিরেক্টর শ্রী সাকেত আগারওয়াল বলেন ” আমাদের নতুন

প্রোডাক্টটি শুধুমাত্র গুণমানেই নয়, বিশ্বাসযোগ্যতাতেও শ্রেঠ। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আমরা পরবর্তী ছ’ মাসের মধ্যে সম্প্রসারণকেই প্রাধান্য দিচ্ছি। এছাড়া দুর্গাপুরেও আমরা একটি ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিট শুরুর পথে।” কোম্পানির আরও একজন ডিরেক্টর শ্রী সুমিত আগরওয়াল বলেন যে ” চলতি অতিমারী আমাদের সজাগ করে তুলেছে বিভিন্ন রকমের সতর্কতার ব্যাপারে। কলকাতা বর্তমানে সিসমিক জোন ৩ ও ৪ এর আওতায়, তাই প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের থেকে নিরাপদ থাকার জন্যই আমরা নতুন মিকি পাওয়ার প্লাস টিএমটি ৬০০ এসডি বাজারে এনেছি।”

About Post Author

Total Page Visits: 572 - Today Page Visits: 2