August 14, 2022

মধ্য কলকাতার পৌর প্রতিনিধি সোমা চৌধুরীর উদ্যোগে আমজনতার দরবারে আম উৎসব

শ্রীজিৎ চট্টরাজ – কলকাতা

মধ্য কলকাতার রাজা রামমোহন রায় সরণী ও এম জি রোডের সংযোগে স্থানীয় পৌর প্রতিনিধি সোমা চৌধুরী ও স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব পিয়াল চৌধুরীর উদ্যোগে আম জনতার মাঝে আম উৎসবের আয়োজন করে আসছেন বিগত কয়েক বছর ধরে। করোনা পরিস্থিতির পর এবারের উৎসব ছিল অনেক আকর্ষণীয়। অনুষ্ঠানে যোগদানের তালিকা আর মঞ্চে হাজির শাসক দলের নেতৃত্বের উপস্থিতি বুঝিয়ে দেয়, দলে পিয়াল চৌধুরী ও তাঁর স্ত্রী পৌর প্রতিনিধি সোমা চৌধুরীর জনপ্রিয়তা।

আম উৎসবে সামিল শাসক দলের নেতৃত্বের তালিকা বিশাল। মধ্যমণি ছিলেন অবশ্যই বর্ষীয়ান প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বর্তমান সাংসদ সুদীপ বন্দোপাধ্যায়। তিনি অনুষ্ঠানের আয়োজকদের বলেন, আগামী বছর থেকে মঞ্চ যেন আরও বড় করা হয়। নাহলে আমন্ত্রিত নেতৃত্বের সবাইকে স্থান দেওয়া যাবে না। তাঁর বক্তব্যে তিনি বলেন, আমি আমের সেরা ফলনের জায়গা মুর্শিদাবাদের ভূমিপুত্র। আমের যেসব প্রজাতি আছে তার অভিজ্ঞতা আমার আছে। মধুমেহ রোগীদের নাকি আম খাওয়া বারণ। কিন্তু আমের বিরহে বেঁচে থাকা কষ্টের। রসনাপ্রিয় বাঙালির জীবনের কয়েকটা বছরের ত্যাগ স্বীকার করেও আমে আমোদিত থাকা উচিত।

কলকাতার প্রধান নাগরিক ফিরহাদ হাকিম বলেন, আমি দক্ষিণের বাসিন্দা হলেও খাবার চেখে দেখতে উত্তরে আসি। এমন খাদ্য কোথাও মেলে না।আমার সহকর্মী ডেপুটি মেয়রের পাড়ায় গেলে সে গোলবাড়ির কষা মাংস খাওয়ায়। সে স্বাদ ভুলবো না। এখানে এসে শুনলাম, আমের চপ ভাজা হয়েছে। সে বস্তুটিও আগে চেখে দেখিনি। আজ খাওয়ার সৌভাগ্য হবে।

আমন্ত্রিতদের মধ্যে ছিলেন, কার্তিক বন্দোপাধ্যায়, অশোক দেব, সুজিত বোস, মালা রায়,চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, শশী পাঁজা, তাপস রায়, শান্তুনু সেন, শ্রেয়া পাণ্ডে, স্বপন সমাদ্দার, শিখা মিত্র সহ প্রায় ১০০জন পৌর প্রতিনিধি ও দলীয় নেতৃত্ব। আমের কেক কেটে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। সাধারণ মানুষদের মধ্যে পরিবেশন হয় আমের নানা পদ। এস ওয়াজেদ আলি বলেছেন, সেই ট্র্যাডিশন সমানে চলেছে। সত্যিই দেশের সেরা ফল সেই হাজার হাজার বছর ধরে রসনা তৃপ্ত করে আসছে। হিমসাগর,ল্যাংড়া, ফজলি এমন নাম জানা জাতের আমের সঙ্গে বউ ভুলানি, জামাই পসন্দ, রাণীভোগ,সুন্দরী সহ তিনশো রকমের আম চেখে দেখা এক জীবনে সম্ভব নয়।

ভারতীয় আমের খোঁজ চিনা পর্যটক হিউ এন সাঙ বিশ্বকে পৌঁছে দেন ৬৩২-৬৪৮ খ্রিস্টাব্দে। সেই থেকে আম ফলের রাজা হিসেবেই বিশ্বে স্বীকৃতি পেয়ে এসেছে। আমজনতার মাঝে আম উৎসবের পরিকল্পনা যে জনসংযোগের মাধ্যম এবং তা একশো শতাংশ সফল সেটা প্রমাণ করলেন দম্পতি পিয়াল ও সোমা চৌধুরী

ছবি – রাজিব মুখার্জি।

About Post Author

Total Page Visits: 135 - Today Page Visits: 2