October 6, 2022

শুটিং চলছে বাংলা ছায়াছবি অগ্নিমন্থন এর

নিজস্ব প্রতিনিধি –

প্রায় দুবছর পর আবার শ্যুটিং ফ্লোরে পা রাখলেন মঞ্চাভিনেতা মেঘনাদ ভট্টাচার্য। ছবির নাম অগ্নিমন্থন পরিচালক প্রবীর রায়। মেঘনাদাই অগ্নিমন্থন-এর প্রোটাগনিস্ট চরিত্রের নাম দিব্যজ্যোতি রায়। প্রাক্তন চলচ্চিত্র নির্মাতা। উপযুক্ত পরিবেশের অভাবে ছবি করা ছেড়ে দিয়েছেন আপসহীন দিব্যজ্যোতি। যে দুর্নীতি আর স্বজনপোষণের কারণে কর্মক্ষেত্র থেকে তিনি নিজেকে দূরে সরিয়ে নিয়েছিলেন, সেই একই আবহ নিজের ঘরেও।

তিনি আবদ্ধ। পালানোর পথ নেই। বুঝতে পারেন বাড়িতেও আপোস করতে হবে। একমাত্র নাতনি আর পুত্রবধূ দিব্যজ্যোতির মনের ভাষা বুঝতে পারে। ধীরে ধীরে অস্তিত্বের সঙ্কটে ভুগতে শুরু করেন প্রৌঢ় মানুষটি। মৃত্যুকে প্রত্যক্ষ করতে শুরু করেন। এমন সময় নৃশংসভাবে খুন হয়ে যায় দিব্যজ্যোতির জামাই। কবি-সাংবাদিক অভিমন্যুকে ভীষণ ভালোবাসতেন তিনি। ক্ষোভে ফেটে পড়েন লড়াকু মানুষটি। সুবিচারের জন্য জনমত টৈরি করতে শুরু করেন তিনি। রাজনীতির মঞ্চে পা বাড়নো স্ত্রী আর সংবাদ মাধ্যমের

প্রভাবশালী চ্যানেলকর্তা পুত্র মস্তিষ্ক বিকৃতির অজুহাতে দিব্যজ্যোতিকে অ্যাসাইলামে পাঠিয়ে দেয়। রূদ্ধ হয়ে যায় এক প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর। কিন্তু সত্যটা থেমে থাকে না। দিব্যজ্যোতিকে নিয়ে এক তরুন পরিচালকের তৈরি তথ্যচিত্রটি পৌঁছে যায় আম জনতার দরবারে। অগ্নিমন্থনের মধ্যে দিয়ে আগামী প্রজন্মের হাতে প্রতিবাদের পিলসুজটা শেষ পর্যন্ত তুলে দিয়ে যেতে সক্ষম হন দিব্যজ্যোতি। মেঘনাদ ভট্টাচার্য ছাড়াও ছবিটিতে অভিনয় করেছেন মৌমিতা গুপ্ত,

অনিন্দ্য সরকার, মৈত্রেয়ী মিত্র, ঋক দে, বৈশালী মজুমদার, অস্নি দাস প্রমুখ। পরিচালক বললেন, ‘মানুষ প্রতিবাদ করতে ভুলে গেছে। আবার ঘুরে দাঁড়ানোর সময় এসেছে। সেটা ছবিতে বলার চেষ্টা করেছি।’ মেঘনাদ ভট্টাচার্য মনে করেন ছবিটি রাজনৈতিক। সেই প্রেক্ষপটে সর্বত্র আপসের কদর্য রূপটা তুলে ধরা হয়েছে। কাহিনি ও চিত্রনাট্যকার অশোক রায়। ডিওপি শান্তনু ব্যানার্জি। সুরকার বুদ্ধ গাঙ্গুলি। গীতিকার শান্তিনাথ কুণ্ডু। গান গেয়েছেন অমিত গাঙ্গুলি, বিশ্বজিৎ দাশগুপ্ত ও তনুশ্রী দেব। সম্প্রতি ছবিটির একটি বিশেষ বহিঃর্দৃশ্যের শ্যুটিং হল বাগনানের আরণ্যক রিসর্টে। চলতি বছরেই মুক্তি পাওয়ার কথা ছবিটি।

ছবি – রাজীব মুখার্জি

About Post Author

Total Page Visits: 240 - Today Page Visits: 1